Sitaram Jindal Scholarship

Sitaram Jindal Scholarship 2022 | সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপে আবেদন পদ্ধতি, যোগ্যতা

Last Updated on June 18, 2022 by Science Master

সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপ (Sitaram Jindal Scholarship) অন্যান্য স্কলারশিপের মতোই একটি অতি উল্লেখযোগ্য স্কলারশিপ। যেসমস্ত ছাত্র-ছাত্রী মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক বা কলেজের পরীক্ষায় পাশ করে পরবর্তী ক্লাসে ভর্তি হয়েছেন তারা এই স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবেন। স্কুল বা কলেজের অন্যান্য স্কলারশিপে আবেদনের সঙ্গে সঙ্গে এই স্কলারশিপের জন্যেও আবেদন করা যাবে। সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপে আবেদনের পদ্ধতি, যোগ্যতা এবং কত টাকা স্কলারশিপ পাওয়া যাবে তা নিয়ে নিচে আলোচনা করা হলো।

সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপে (Sitaram Jindal Scholarship) আবেদনের যোগ্যতাঃ

এই স্কলারশিপকে কয়েকটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। নিচে ক্যাটাগরি অনুযায়ী আবেদনের যোগ্যতা নিয়ে আলোচনা করা হল।

১) ক্যাটাগরি A (Class-11/Class-12)- আবেদনকারীকে উচ্চমাধ্যমিক কোর্সে পাঠরত হতে হবে। ছেলেদের ক্ষেত্রে মাধ্যমিকে কমপক্ষে ৬৫% নম্বর পেতে হবে এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৬০% নম্বর পেতে হবে।

২) ক্যাটাগরি B (ITI Student)- আবেদনকারীকে সরকারী বা বেসরকারী কলেজে ITI কোর্সে পাঠরত হতে হবে। ছেলেদের ক্ষেত্রে সর্বশেষ পরীক্ষায় কমপক্ষে ৪৫% নম্বর পেতে হবে এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৩৫% নম্বর পেতে হবে।

আরও দেখুন:  NMMSE Result 2023-2024 | পশ্চিমবঙ্গ NMMS ২০২৩ পরীক্ষার রেজাল্ট

৩) ক্যাটাগরি C ( Graduate & Post Graduate)- আবেদনকারীকে গ্র্যাজুয়েট বা পোষ্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্সে পাঠরত হতে হবে। ছেলেদের ক্ষেত্রে সর্বশেষ পরীক্ষায় কমপক্ষে ৬০% নম্বর পেতে হবে এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৫৫% নম্বর পেতে হবে।

৪) ক্যাটাগরি D (Diploma Course)- আবেদনকারীকে ডিপ্লোমা কোর্সে পাঠরত হতে হবে। ছেলেদের ক্ষেত্রে সর্বশেষ পরীক্ষায় কমপক্ষে ৫৫% নম্বর পেতে হবে এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৫০% নম্বর পেতে হবে।

৫) ক্যাটাগরি E (Engineering & Medical Course)- আবেদনকারীকে ইঞ্জিনিয়ারিং বা মেডিক্যাল কোর্সে পাঠরত হতে হবে। ছেলেদের ক্ষেত্রে সর্বশেষ পরীক্ষায় কমপক্ষে ৬৫% নম্বর পেতে হবে এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৬০% নম্বর পেতে হবে।

সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপের (Sitaram Jindal Scholarship) পরিমানঃ

বিভিন্ন কোর্সের ক্ষেত্রে প্রতি মাসে স্কলারশিপের পরিমানের তালিকা নিচে দেওয়া হলো।

ক্যাটাগরি কোর্স স্কলারশিপের পরিমান
(প্রতি মাসে)
ক্যাটাগরি ‘A’একাদশ ও দ্বাদশছাত্রদের জন্য ৫০০/-
ছাত্রীদের জন্য ৭০০/-
ক্যাটাগরি ‘B’ITI কোর্সসরকারী হলে ৫০০/-
বেসরকারী হলে ৭০০/-
ক্যাটাগরি ‘C’গ্র্যাজুয়েট


পোষ্ট গ্র্যাজুয়েট
ছাত্রদের জন্য ১১০০/-
ছাত্রীদের জন্য ১৫০০/-
ছাত্রদের জন্য ১৫০০/-
ছাত্রীদের জন্য ১৮০০/-
ক্যাটাগরি ‘D’ডিপ্লোমা কোর্সছাত্রদের জন্য ১০০০/-
ছাত্রীদের জন্য ১২০০/-
ক্যাটাগরি ‘E’ইঞ্জিনিয়ারিং

মেডিক্যাল
ছাত্রদের জন্য ২০০০/-
ছাত্রীদের জন্য ২৩০০/-

ছাত্রদের জন্য ২৮০০/-
ছাত্রীদের জন্য ৩২০০/-
হোস্টেলারগ্র্যাজুয়েট, পোষ্ট গ্র্যাজুয়েট, ITI কোর্স
ইঞ্জিনিয়ারিং,মেডিক্যাল
১২০০/-
১৮০০/-

সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপে (Sitaram Jindal Scholarship) আবেদনের পদ্ধতিঃ

আরও দেখুন:  বিদ্যাসাগর সায়েন্স অলিম্পিয়াড ২০২৪ | Vidyasagar Science Olympiad 2024 (VSO)

যেসমস্ত ছাত্র-ছাত্রী এই স্কলারশিপের আবেদন করতে ইচ্ছুক তাদের অফলাইনে আবেদন করতে হবে। অফলাইন আবেদন সঠিকভাবে পূরন করে নিচে দেওয়া ঠিকানায় পাঠাতে হবে। আবেদনপত্র নিচে দেওয়া লিঙ্কে ক্লিক করে ডাউনলোড করা যাবে।

আবেদনপত্র পাঠানোর ঠিকানাঃ

The Trustee, Sitaram Jindal Foundation 11,

Green Avenue, Behind Sector D-3,

Vasant Kunj, New Delhi 110070

কী কী ডকুমেন্টস লাগবেঃ স্কলারশিপে আবেদনের জন্য যেসমস্ত ডকুমেন্টস লাগবে তা নিচে দেওয়া হলো। অবশ্যই প্রতিটি ডকুমেন্টস প্রন্সিপ্যাল বা হেড অফ ইনস্টিটিউশন দ্বারা অ্যাটিস্টেড করে নিতে হবে।

১) সর্বশেষ পরীক্ষার মার্কসিট।

২) মাধ্যমিক বা উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার সার্টিফিকেট এবং মার্কসিট।

৩) মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড।

৪) ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিক্যাল এবং ডিপ্লোমা কোর্সের ক্ষেত্রে ভর্তির প্রমানপত্র।

আরও দেখুন:  NMMSE Result 2023-2024 | পশ্চিমবঙ্গ NMMS ২০২৩ পরীক্ষার রেজাল্ট

৫) পারিবারিক আয়ের সার্টিফিকেট।

৬) পাসপোর্ট সাইজের কালার ছবি।

৭) ডিপ্লোমা, ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিক্যাল কোর্সের ক্ষেত্রে সরকারি মেধা কোটার অধীনে ভর্তি সংক্রান্ত সার্টিফিকেট।

8) শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধিদের ক্ষেত্রে উপযুক্ত প্রমানপত্র।

Download Application Form: Click here

Official Website: https://www.sitaramjindalfoundation.org/

সীতারাম জিন্দাল স্কলারশিপের (Sitaram Jindal Scholarship) কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্যঃ

১) পারিবারিক বার্ষিক আয় চাকুরিজিবীদের ক্ষেত্রে ৪ লক্ষ এবং অন্যদের ক্ষেত্রে ২.৫ লক্ষ হতে হবে এবং আয়ের সংশাপত্র দিতে হবে।

২) কোর্স চলাকালীন কেবলমাত্র একবারই আবেদন করা যাবে।

৩) কোর্স চলাকালীন যেকোনো সময় আবেদন করা যাবে কিন্তু কোর্সের শেষতম বছর আবেদন করলে গ্রাহ্য হবে না।

৪) এক বছরের নীচের কোনো কোর্সে ভর্তি হলে স্কলারশিপ পাওয়া যাবে না।

৫) আবেদনকারীর বয়স ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে।

৬) আবেদনপত্র নির্দিষ্ট ঠিকানায় পাঠাতে হবে।

আমাদের পোষ্টের লেটেস্ট আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ জয়েন করুন এবং টেলিগ্রাম চ্যানেল জয়েন করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top