light chapter physical science class 10

ভৌত বিজ্ঞান বিষয়ের আলো অধ্যায় | Light Chapter Physical Science WBBSE class 10

Last Updated on June 24, 2022 by Science Master

ভৌত বিজ্ঞান বিষয়ের আলো অধ্যায়ের প্রশ্ম ও উত্তর

WBBSE Physical Science Light Chapter

পশ্চিমবঙ্গ বোর্ডের মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য দশম শ্রেণীর ভৌত বিজ্ঞান বিষয় একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সামনের বছর যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে তাদের কথা মাথায় রেখে এই ভৌত বিজ্ঞান বিষয়ের একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় ” আলো ” এর কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্মের উত্তর করে দেওয়া হলো (Light Chapter Physical Science)। যে সমস্ত ছাত্র-ছাত্রী মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে তাদের মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রস্তুতিতে কাজে লাগবে। মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য মেধাবি ছাত্র-ছাত্রীদের কথা ভেবেই এই প্রচেষ্টা (Light Chapter Physical Science)।

◪ আলো অধ্যায়ের সঠিক উত্তর নির্বাচনধর্মী প্রশ্ম (Light Chapter Physical Science MCQs and Answers):-

1. গোলীয় দর্পনের বক্রতা ব্যাসার্ধ ‘ r ‘ এবং ফোকাস দৈর্ঘ্য ‘ f ‘ এর মধ্যে সম্পর্কটি হল- [MP-17]

(a) f=2r (b) r = 2f (c) r = f (d) r = 3f

উঃ- r = 2f

2. প্রিজমের মধ্যে দিয়ে সাদা আলো প্রতিসরণের ক্ষেত্রে যে বর্ণের বিচ্যুতি সর্বাধিক, সেটি কোনটি-

(a) লাল (b) হলুদ (c) বেগুনি (d) সবুজ । [MP-17]

উঃ- বেগুনি ।

3. একটি পাতলা উত্তল লেন্সের আলোককেন্দ্র ও ফোকাসের মধ্যে একটি বস্তু রাখা আছে। বস্তুটির প্রতিবিম্বের প্রকৃতি কোনটি –

(a) সদ ও অবশীর্ষ (b) অসদ ও অবশীর্ষ (c) সদ ও সমশীর্ষ (d) অসদ ও সমশীর্ষ [MP-18]

উঃ- অসদ ও সমশীর্ষ ।

4. একটি লাল ও একটি বেগুনি বর্ণের আলোকরশ্মি বায়ু মাধ্যম থেকে একই কোণে একটি প্রিজমের আনততলে আপতিত হয়ে যথাক্রমে r ও v প্রতিসরন কোণ উৎপন্ন করলে নীচের কোনটি সঠিক ? [MP-20]

(a) r = v (b) r = 1/v (c) r > v (d) r < v

উঃ- r < v

5. একটি বিন্দু আলোক উৎস একটি অবতল দর্পনের বক্রতা কেন্দ্রে স্থাপিত হল। এই উৎস থেকে দর্পনে আপতিত ও দর্পন থেকে প্রতিফলিত রশ্মির মধ্যে চ্যুতি কোণ হল [MP-20]

(a) 0o (b) 180o (c) 90o (d) 360o

উঃ- 0o

6. নীচের কোনটির তরঙ্গ দৈর্ঘ্য সবচেয়ে বেশি ? [MP-19, 22]

(a) X রশ্মি (b) γ রশ্মি (c) আতিবেগুনি রশ্মি (d) অবলোহিত রশ্মি

উঃ- অবলোহিত রশ্মি ।

7. প্রতিসরনের ক্ষেত্রে আপতন কোণ ও প্রতিসরন কোণ যথাক্রমে 45o ও 30o হলে কৌণিক চ্যুতির মান হবে [MP-19]

(a) 75o (b) 15o (c) 7.5o (d) 37.5o

উঃ- (45-30)o= 15o

8. ঘন মাধ্যম থেকে লঘু মাধ্যমে প্রতিসরণের ক্ষেত্রে চ্যুতি কোণের মান হল-

(a) i-r (b) r-i (c) i-2r (d) 2r-i

উঃ- r-i

9. A, B, C, D চারটি মাধ্যমের পরম প্রতিসরাঙ্ক যথাক্রমে 1.5, 1.4 , 2.5, 1.3 । এদের মধ্যে কোন মাধ্যমে আলোর বেগ সর্বাধিক-

(a) A (b) B (c) C (d) D

উঃ- D

10. মোটর গাড়ির হাডলাইটে ব্যবহৃত হয়-

(a) উত্তল দর্পন (b) অবতল দর্পন (c) সমতল দর্পন (d) উত্তল ও সমতল দর্পন ।

উঃ- অবতল দর্পন ।

11. আলোককেন্দ্র দিয়ে যাবার সময় আলোকরশ্মির বিচ্যুতি –

(a) 0o (b) 45o (c) 30o (d) 90o

উঃ- 0o

12. শূন্য মাধ্যমের পরম প্রতিসরিঙ্কের মান –

(a) 0 (b) 1 (c) 1.5 (d) 1.33

উঃ- 1

13. কোন জোড়টি সাদা আলোর বিশুদ্ধ বর্ণালির দুটি প্রান্তিক বর্ণ ?

(a) লাল ও বেগুনি (b) লাল ও সবুজ (c) বেগুনি ও কমলা (d) নীল ও আকাশি

উঃ- লাল ও বেগুনি।

14. লম্ব আপতনের ক্ষেত্রে প্রতিসরণ কোণের মান –

(a) 0o (b) 90o (c) 180o (d) দুই মাধ্যমের সংকট কোণ।

উঃ- 0o

15. একটি অবতল দর্পনের বক্রতা ব্যাসার্ধ 20 সেমি. হলে দর্পনটির ফোকাস দৈর্ঘ্য হবে- [MP-22]

(a) 20 সেমি.(b) 15 সেমি.(c) 10 সেমি. (d) 40 সেমি.

উঃ- 10 সেমি.

16. দন্ত চিকিৎসকগণ ব্যবহার করেন- [MP-22]

(a) উত্তল দর্পন (b) উত্তল লেন্স (c) অবতল দর্পন (d) অবতল লেন্স।

উঃ- অবতল দর্পন।

◪ অতি সংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ম (Light Chapter Physical Science VSAQs and Answers):-

1.মোটর গাড়ির ভিউ ফাইণ্ডারে কোন ধরনের দর্পন ব্যবহৃত হয় ? [MP-18]

উঃ- উত্তল দর্পন।

2. বিবর্ধক কাচ হিসেবে কোন প্রকারের লেন্স ব্যবহৃত হয় ? [MP-16]

উঃ- উত্তল লেন্স।

3. মায়োপিয়া বা হ্রস্বদৃষ্টি ত্রুটি দূর করতে কোন ধরনের লেন্স ব্যবহার করা হয় ? [MP-17]

উঃ- অবতল লেন্স।

4. কোন লেন্স সমান্তরাল আলোকরশ্মি গুচ্ছকে অপসারী আলোকরশ্মি গুচ্ছে পরিণত করে ? [MP-16]

উঃ- অবতল লেন্স।

5. কোন ধরনের লেন্সের সাহায্যে দীর্ঘ দৃষ্টি প্রতিকার করা যায় ? [MP-18]

উঃ- উত্তল লেন্স।

6. প্রিজমের মধ্যে দিয়ে সাদা আলো পাঠালে কোন বর্ণের আলোর বিচ্যুতি নুন্যতম হবে ? [MP-16]

উঃ- লাল বর্ণের আলোর বিচ্যুতি নুন্যতম হবে ।

7. আলোর বিচ্ছুরণের একটি প্রাকৃতিক উদাহরণ দাও। [MP-17]

উঃ- আলোর বিচ্ছুরণের একটি প্রাকৃতিক উদাহরণ হল রামধনু।

8. বর্ণালী কাকে বলে ? বর্ণালী কত প্রকার ও কি কি ?

উঃ- বহুবর্ণী আলো প্রিজমের মধ্যে দিয়ে প্রতিসরণের ফলে বিশ্লিষ্ট হয়ে বিভিন্ন উপাদান বর্ণের আলোকগুচ্ছে পরিণত হয়ে পর্দায় যে চওড়া পটি উৎপন্ন করে তাকে বর্ণালী বলে।

আরও দেখুন:  {PDF} মাধ্যমিক ২০২৪ ইংরেজী প্রশ্মপত্র | Madhyamik 2024 English Question Paper

বর্ণালী দুই প্রকার, শুদ্ধ বর্ণালী ও অশুদ্ধ বর্ণালী ।

9. গোলীয় দর্পনের মেরু বলতে কী বোঝায় ? [MP-20]

উঃ- একটি গোলীয় দর্পনের প্রতিফলক তলের মধ্যবিন্দুকে ওই দর্পনের মেরু বলে।

10. এক্স রশ্মির একটি ব্যবহার লেখো।

উঃ- চিকিৎসা বিজ্ঞানে রোগ নির্ণয় , ক্যানসার, টিউমারের চিকিৎসায় এক্স রশ্মি ব্যবহৃত হয়।

11. একটি আলোক রশ্মি অবতল দর্পনের বক্রতা কেন্দ্র দিয়ে গেলে আপতন কোণ কত হবে?

উঃ- আলোক রশ্মি অবতল দর্পনের বক্রতা কেন্দ্র দিয়ে গেলে তা দর্পনের ওপর লম্বভাবে আপতিত হয়, অর্থাৎ আপতন কোণ হবে 90o

12. উত্তল লেন্সের সামনে কোথায় বস্তু রাখলে বস্তুর সমান আকারের সদবিম্ব গঠিত হয় ?

উঃ- ফোকাসে।

13. মোটর গাড়ির হেডলাইটে কোন ধরনের দর্পন ব্যবহার করা হয়? [MP-22]

উঃ- অবতল দর্পন।

14. কোনোও দর্পনে বস্তুর দৈর্ঘ্যের তুলনায় ছোটো দৈর্ঘ্যের অসদ প্রতিবিম্ব গঠিত হতে পারে কী? [MP-22]

উঃ- হ্যাঁ পারে, উত্তল দর্পনে বস্তুর দৈর্ঘ্যের তুলনায় ছোটো দৈর্ঘ্যের অসদ প্রতিবিম্ব গঠিত হতে পারে।

15. লাল ও নীল বর্ণের আলোর জন্য কোনও মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক যথাক্রমে μr ও μb হলে কোনটির মান বেশি? [MP-22]

উঃ- μb

◪ সংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ম (Light Chapter Physical Science SAQs and Answers):-

1. গাড়ির হেডলাইটে কী ধরনের দর্পন ব্যবহার করা হয় এবং কেন ? [MP-17]

উঃ- মোটর গাড়ির হেডলাইটে অবতল দর্পন ব্যবহার করা হয়। একটি অবতল প্রতিফলকের ফোকাসে একটি বাল্ব জ্বালানো হলে বাল্ব থেকে উৎপন্ন অপসারী আলোকরশ্মি অবতল প্রতিফলকে আপতিত হয়ে প্রতিফলনের পরে সমান্তরাল আলোকরশ্মি গুচ্ছে পরিণত হয়। এই সমান্তরাল আলোকরশ্মি গুচ্ছ অনেক দূরে যায় এবং গাড়ির চালক রাতের অন্ধকারে অনেক দূরের বস্তুকে দেখতে পায়।

2. উত্তল বা অবতল দর্পনের ক্ষেত্রে দেখাও যে, f = r/2 [MP-17]

উঃ-

20211028 224112 copy

উত্তল দর্পনের ক্ষেত্রেঃ- M1PM2 হল একটি উত্তল দর্পনের প্রধান ছেদ, C বক্রতাকেন্দ্র, F ফোকাস এবং P মেরু। একটি আলোকরশ্ম RS প্রধান অক্ষের সমান্তরালে এসে দর্পনের S বিন্দুতে আপতিত হয়ে প্রতিফলনের পর ফোকাস F থেকে নির্গত হচ্ছে বলে মনে হয় এবং ST পথে চলে যায়। CSN দর্পনের উপর S বিন্দুতে লম্ব।

প্র্রতিফলনের সূত্র অনুযায়ী, ∠RSN= ∠TSN

∠ FSC= ∠TSN (বিপ্রতীপ কোণ) RS এবং PC রেখা পরস্পরের সমান্তরাল বলে ∠SCF= ∠RSN (অনুরুপ কোণ) সুতরাং

∠FSC= ∠SCF

অতএব, CF=FS

দর্পনের উন্মেশ তার বক্রতা ব্যাসার্ধের তুলনায় অনেক ছোটো এবং আপতিত রশ্মিগুলি উপাক্ষীয় হলে S বিন্দু P বিন্দুর খুব কাছে হয়। সেক্ষেত্রে FS=FP ।

অতএব, CF=FP , ∴ FP=1/2 CP

f=1/2r (যেখানে r দর্পনের বক্রতা ব্যাসার্ধ এবং f ফোকাস দৈর্ঘ্য)

3. কোনো মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক আলোর বেগের উপর কিভাবে নির্ভরশীল ? [MP-17]

উঃ- আলোর গতিবেগ বাড়লে কোনো মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক বাড়ে।

4. কোনো উত্তল লেন্সের আলোককেন্দ্র বলতে কী বোঝায় ? [MP-18]

উঃ- কোনো আলোকরশ্মি কোনো উত্তল লেন্সের একপৃষ্ঠে আপতিত হয়ে লেন্সের মধ্য দিয়ে প্রতিসরনের পর অপর পৃষ্ঠ দিয়ে আপতিত রশ্মির সমান্তরালে নির্গত হলে রশ্মিটির গতিপথ উত্তল লেন্সটির প্রধান অক্ষকে যে স্থির বিন্দুতে ছেদ করে, তাকে উত্তল লেন্সের আলোককেন্দ্র বলে।

5. শুদ্ধ ও অশুদ্ধ বর্ণালি কাকে বলে ? [MP-16]

উঃ- শুদ্ধ বর্ণালি :- যে বর্ণালীতে উপাদানগত বর্ণ গুলি নিজ নিজ অবস্থানে থেকে স্পষ্ট বর্ণপটির সৃষ্টি করে তাকে শুদ্ধ বর্ণালী বলে।

অশুদ্ধ বর্ণালি:- যে বর্ণালীতে উপাদানগত বর্ণ গুলি পাশাপাশি একে অন্যের ওপর পড়ে মিশ্র বর্ণ পটির সৃষ্টি করে তাকে অশুদ্ধ বর্ণালি বলে।

6. দিনের বেলায় পৃথিবীর আকাশ নীল দেখায় কেন? [MP-18]

উঃ- দিনের বেলায় যখন সূর্যরশ্মি বায়ুমণ্ডলের ভেতর দিয়ে আসে, নীল বর্ণের আলোকরশ্মির তরঙ্গ দৈর্ঘ্য কম হওয়ায় বায়ুর মধ্যে থাকা কণাগুলি নীল বর্ণের আলোকে বিক্ষিপ্ত করে চারদিকে ছড়িয়ে দেয়। এই বিক্ষিপ্ত আলোকরশ্মি আমাদের চোখে পৌঁছায়, তাই আমরা আকাশকে নীল দেখি।

7. শূন্য মাধ্যমে আলোর বিচ্ছুরণ হয় না কেন? আলোর বিচ্ছুরণের একটি প্রাকৃতিক উদাহরণ দাও। প্রতিবিম্বের রৈখিক বিবর্ধণ কাকে বলে ?

উঃ- শূন্য মাধ্যমে বা বায়ু মাধ্যমে সব বর্ণের আলো সমান বেগে চলে। তাই শূন্য বা বায়ু মাধ্যমে আলোর বিচ্ছুরণ হয় না।

আলোর বিচ্ছুরণের প্রাকৃতিক উদাহরণ হল রামধনু।

প্রতিবিম্বের উচ্চতা এবং বস্তুর উচ্চতার অনুপাতকে রৈখিক বিবর্ধণ বলে।

8. স্নেলের সূত্রটি লেখো এবং গাণিতিকভাবে প্রকাশ করো। [MP-17]

উঃ- নির্দিষ্ট দুটি মাধ্যম ও নির্দিষ্ট বর্ণের আলোর ক্ষেত্রে আপতন কোণের সাইন ও প্রতিসরন কোণের সাইনের অনুপাত সর্বদা ধ্রুবক হয়।

যখন একটি নির্দিষ্ট বর্ণের আলোকরশ্মি নির্দিষ্ট মাধ্যমদ্বয়ের বিভেদতলে প্রতিসৃত হয় তখন আপতন কোণ ∠i এবং প্রতিসরন কোণ ∠r হলে,

\frac{Sin\;i}{Sin\;r}=\mu

যেখানে ধ্রুবক μ (মিউ) কে প্রথম মাধ্যমের সাপেক্ষে দ্বিতীয় মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক বলে।

9. কোনো মাধ্যমে আলোর বেগ 2 x 108 m/s হলে ঐ মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক কত ? [MP-18]

আরও দেখুন:  মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন 2024: রাসায়নিক গণনা | Madhyamik suggestion 2024 physical science chapter 3

উঃ- আমরা জানি, শূন্য মাধ্যমে আলোর বেগ 3 x 108 m/s

ঐ \;মাধ্যমের \;প্রতিসরাঙ্ক( μ ) = \frac{শূন্য \;মাধ্যমে \;আলোর \;বেগ }{ ঐ \;মাধ্যমে \;আলোর \;বেগ}\\\mu=\frac{3\times10^8}{2\times10^8}\\\mu=1.5

অতএব, ঐ মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক হবে 1.5 ।

10. বায়ু সাপেক্ষে কোনো মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক √2। বায়ুতে আলোকরশ্মির আপতন কোণ 45o হলে প্রতিসরণের ক্ষেত্রে ঐ রশ্মির চ্যুতি কোণ কত হবে তা নির্ণয় করো। [MP-18]

উঃ- প্রতিসরাঙ্ক (μ) = √2 , বায়ুতে আলোকরশ্মির আপতন কোণ ( i )= 45o

\mu=\frac{Sin\;i}{Sin\;r}\\\sqrt2=\frac{Sin\;45^o}{Sin\;r}\\Sin\;r=\frac{Sin\;45^o}{\sqrt2}\\Sin\;r=\frac{1}{2}\\Sin\;r=Sin\;30^o\\r=30^o

প্রতিসরন কোণ (r) = 30o

চ্যুতি কোণ = ( i – r ) = (45o – 30o ) = 15o

অতএব, চ্যুতি কোণ = 15o

11. একটি আলোক রশ্মি প্রিজমের মধ্যে দিয়ে যায়। দেখাও যে, চ্যুতি কোণের মান δ = i1 + i2 – A [MP-17]

উঃ-

image 2

ABC একটি বায়ু মাধ্যমে রাখা প্রিজম। ∠A প্রিজমের প্রতিসারক কোণ, AB এবং AC দুটি প্রতিসারক তল এবং BC প্রিজমের ভূমি। একটি আলোকরশ্মি PQ বায়ুর মধ্য দিয়ে গিয়ে প্রিজমের AB প্রতিসারক তলের Q বিন্দুতে আপতিত হয়ে প্রতিসরনের পরে প্রিজমের মধ্য দিয়ে QS পথে প্রতিসৃত হয়ে অন্য প্রতিসারক তল AC এর উপর S বিন্দুতে আবার প্রতিসৃত হয়ে ST পথে বায়ুতে নির্গত হয়েছে। NQO, AB তলের Q বিন্দুতে অভিলম্ব এবং N1SO, AC তলের S বিন্দুতে অভিলম্ব। Q বিন্দুতে আপতন কোণ ∠PQN = i1 এবং প্রতিসরন কোণ ∠SQO = r1। S বিন্দুতে আপতন কোণ ∠QSO = r2 এবং প্রতিসরন কোণ ∠TSN1 = i2

আপতিত রশ্মির প্রাথমিক অভিমুখ হল PQRX এবং নির্গত রশ্মির অভিমুখ RST।

সুতরাং প্রিজমের মধ্য দিয়ে প্রতিসরনের ফলে আলোকরশ্মি চ্যুতি, ∠XRT = δ

এখন, δ = ∠XRT = ∠RQS + ∠RSQ

∴ δ = ( ∠RQO – ∠SQO ) + ( ∠RSO – ∠QSO)

δ = (i1 – r1) + (i2 – r2)

= i1 + i2 – (r1 + r2)

এখন, ∆QOS এ r1 + r2 + ∠O = 180o ………(i)

আবার AQOS চতুর্ভুজে ∠AQO = ∠ASO = 90o

∴ ∠A + ∠O = 180o ………(ii)

(i) এবং (ii) থেকে পাই ∠A = r1 + r2

সুতরাং, চ্যুতিকোণ δ = i1 + i2 – ∠A

12. দীর্ঘ দৃষ্টি কী ? এর প্রতিকারের জন্য কোন লেন্স ব্যবহৃত হয় ? [MP-22]

উঃ- যদি চোখ দূরের বস্তুকে স্পষ্ট দেখতে পায় কিন্তু কাছের বস্তুকে স্পষ্ট দেখতে না পায় তাহলে চোখের দৃষ্টিজনিত ত্রুটিকে দীর্ঘদৃষ্টি বলে।

এটি প্রতিকারের জন্য উপযুক্ত ফোকাস দূরত্বের উত্তল লেন্স ব্যবহার করতে হবে।

13. একটি সরল ক্যামেরা দ্বারা গঠিত প্রতিবিম্বের দুটি বৈশিষ্ট উল্লেখ করো। [MP-20]

উঃ- সরল ক্যামেরা দ্বারা গঠিত প্রতিবিম্বের প্রকৃতি হয় সদবিম্ব ও অবশীর্ষ।

সরল ক্যামেরা দ্বারা গঠিত প্রতিবিম্বের আকার বস্তুর চেয়ে ছোটো।

14. অসীমে অবস্থিত কোনো বিস্তৃত বস্তুর অবতল দর্পন কর্তৃক গঠিত প্রতিবিম্ব দর্পনের সামনে কোথায় গঠিত হবে? প্রতিবিম্বটির একটি বৈশিষ্ট লেখো। [MP-20]

উঃ- অসীমে অবস্থিত কোনো বিস্তৃত বস্তুর অবতল দর্পন কর্তৃক গঠিত প্রতিবিম্ব দর্পনের সামনে ফোকাসে গঠিত হবে। প্রতিবিম্বটি বস্তুর উল্টো প্রতিবিম্ব গঠিত হবে।

15. আলোকের বিচ্ছুরন কী ? একটি কাচফলকের ওপর 45o কোণে আপতিত সাদা আলোর প্রতিসরনের পর কাচফলকের ভেতরে বিচ্ছুরন হবে কী ? [MP-20]

উঃ- সূর্যের সাদা আলোকরশ্মি একটি প্রজমের মধ্য দিয়ে গিয়ে সাতটি বিভিন্ন রঙে বিশ্লিষ্ট হয়ে পড়ে, এই ঘটনাকে আলোর বিচ্ছুরন বলে।

কাচ ফলকের ভেতরে আলোর বিচ্ছুরন ঘটে না।

16. একটি প্রিজমের প্রধান ছেদ একটি সমবাহু ত্রিভূজ। ঐ প্রিজমের একটি প্রতিসারক তলে 30o কোণে আনত একটি রশ্মি যদি অন্য প্রতিসারক তলে 45o কোণে নির্গত হয় তাহলে চ্যুতি কোণ কত হবে ? [MP-20]

উঃ- প্রিজমের প্রধান ছেদ একটি সমবাহু ত্রিভূজ, তাই প্রিজমের প্রতিসারক কোণ হবে (A) = 60o । একটি তলে আপতন কোণ (i1) 30o এবং অন্য প্রতিসারক তলে (i2) 45o কোণে নির্গত হয়,

তাহলে চ্যুতি কোণ, δ = i1 + i2 – ∠A

δ = (30o + 45o ) – 60o

অতএব, δ = 15o

17. বায়ু মাধ্যমে কোনো আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য 6000 Å হলে 1.5 প্রতিসরাঙ্ক বিশিষ্ট কোনো মাধ্যমে ঐ আলোর বেগ ও তরঙ্গ দৈর্ঘ্য কত হবে ? [MP-20]

উঃ-

18. কোনো মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক কাকে বলে ? [MP-19]

উঃ- নির্দিষ্ট দুটি মাধ্যম ও নির্দিষ্ট বর্ণের আলোর ক্ষেত্রে আপতন কোণের সাইন ও প্রতিসরন কোণের সাইনের অনুপাত সর্বদা ধ্রুবক হয়। যেখানে ধ্রুবক μ (মিউ) কে প্রথম মাধ্যমের সাপেক্ষে দ্বিতীয় মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক বলে।

19. উত্তল লেন্স দ্বারা কোন ধরনের দৃষ্টি ত্রুটি প্রতিকার করা হয় ? [MP-19]

উঃ- দীর্ঘদৃষ্টি বা হাইপারমেট্রোপিয়া প্রতিকার করা হয়।

20. দন্ত চিকিৎসকরা কী ধরনের দর্পন ব্যবহার করে ? কাচ ফলকে প্রতিসরনের ফলে আলোক রশ্মির চ্যুতি হয় না কেন ? [MP-19]

উঃ- দন্ত চিকিৎসকরা অবতল দর্পন ব্যবহার করে। কোনো আলোকরশ্মি সমান্তরাল কাচের স্ল্যাবের মধ্যে প্রতিসৃত হলে আপতিত রশ্মি এবং নির্গত রশ্মি পরস্পর সমান্তরাল হয়। তাই এক্ষেত্রে আলোকরশ্মির কোনো কৌণিক চ্যুতি হয় না ।

21. একটি উত্তল লেন্স থেকে 20 সেমি দূরে বস্তু রাখার ফলে উৎপন্ন প্রতিবিম্ব লেন্সের কোনো দিকেই পাওয়া গেল না। ঐ লেন্সের ফোকাস দূরত্ব কত? বায়ু সাপেক্ষে কাচের প্রতিসরাঙ্ক 1.5 হলে কাচের সাপেক্ষে বায়ুর প্রতিসরাঙ্ক কত ? [MP-19]

আরও দেখুন:  মাধ্যমিক ভৌতবিজ্ঞান সাজেশন 2024: তাপের ঘটনাসমূহ | Madhyamik Suggestion 2024 Physical Science Chapter 4

উঃ- উত্তল লেন্সের ফোকাসে বস্তু রাখলে উৎপন্ন প্রতিবিম্ব লেন্সের কোনো দিকেই পাওয়া যায় না। অর্থাৎ, লেন্সের ফোকাস দূরত্ব হবে 20 সেমি ।

বায়ু সাপেক্ষে কাচের প্রতিসরাঙ্ক 1.5 হলে কাচের সাপেক্ষে বায়ুর প্রতিসরাঙ্ক হবে 1/1.5 = 0.66

22. একটি বস্তুর দৈর্ঘ্য 5 সেমি. । এটিকে উত্তল লেন্সের সামনে 2 সেমি. দূরত্বে রেখে 10 সেমি. প্রতিবিম্ব পাওয়া গেল। রৈখিক বিবর্ধন ও প্রতিবিম্ব দূরত্ব কত? [MP-19]

উঃ- একটি বস্তুর দৈর্ঘ্য 5 সেমি. এবং প্রতিবিম্ব দৈর্ঘ্য 10 সেমি.

রৈখিক বিবর্ধন = প্রতিবিম্ব দৈর্ঘ্য / বস্তুর দৈর্ঘ্য

অতএব, রৈখিক বিবর্ধন = 10/5 = 2

আবার, প্রতিবিম্ব দূরত্ব / বস্তুর দূরত্ব = রৈখিক বিবর্ধন

প্রতিবিম্ব দূরত্ব = বস্তুর দূরত্ব X রৈখিক বিবর্ধন

প্রতিবিম্ব দূরত্ব = (2 x 2) = 4 সেমি.

23. লঘু থেকে ঘনতর মাধ্যমে আলোকরশ্মির প্রতিসরনে চ্যুতিকোন নির্ণয় করো। (আপতন কোণ = i এবং প্রতিসরণ কোণ= r ) [MP-22]

উঃ-

image

আলোক রশ্মি লঘু মাধ্যম থেকে ঘন মধ্যমে প্রতিসৃত হলে আপতন কোণের (i) মান প্রতিসরণ কোণের (r) চেয়ে বেশি হয়। অতএব, চ্যুতি কোণ (δ)= i – r

24. সূর্যালোকে গাছের সবুজ পাতাগুলি ‘সবুজ ‘ দেখায় কেন? [MP-22]

উঃ- একটি অস্বচ্ছ বস্তু যে বর্ণের আলো আমাদের চোখে প্রতিফলিত করে বস্তুটিকে সেই বর্ণের মনে হয়। সাদা আলো একটি বস্তুর ওপর পড়লে যদি বস্তুটি সব বর্ণের আলো প্রতিফলিত করে তাহলে বস্তুটিকে সাদা দেখায়। সবুজ পাতার ওপর সূর্যের আলো পড়লে পাতা সবুজ আলো প্রতিফলিত করে দেয় এবং অন্য আলো শোষণ করে। তাই পাতা সবুজ দেখায়।

25. একটি আলো বায়ু মাধ্যম থেকে অপর একটি মাধ্যমের অপর আপতিত হলে মাধ্যমটির প্রতিসরাঙ্ক 1.5 হলে এবং মাধ্যমটিতে আলোটির তরঙ্গ দৈর্ঘ্য 4000 Å হলে, বায়ু মাধ্যমে আলোটির তরঙ্গ দৈর্ঘ্য কত? এই মাধ্যমটিতে আলোর বেগ কত? [MP-22]

উঃ- মাধ্যমের প্রতিসরাঙ্ক (μ) = 1.5

আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য (λ) = 4000 Å

বায়ু মাধ্যমে আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য= (λ0)

আমরা\; জানি, \; \mu=\frac{\lambda }{\lambda _0}\\বা, \; \lambda _0=\frac{\lambda }{\mu}\\বা, \;\lambda _0=\frac{4000 }{1.5}\\বা, \;\lambda _0=6000\;\AA 

বায়ু মাধ্যমে আলোর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য = 6000Å

আবার, শূন্যস্থানে আলোর বেগ, C= 3 x 108 m/s

মাধ্যমটিতে আলোর বেগ v হলে,

\mu=\frac{c}{v}\\বা,\; v=\frac{c}{\mu}\\বা,\; v=\frac{3\times10^8\;m/s}{1.5}\\বা,\; v=2\times10^8\;m/s

মাধ্যমটিতে আলোর বেগ = 2 x 108 m/s

26. কোনো সমবাহু প্রিজমে আলোর প্রতিসরণের ফলে চ্যুতি কোণ হল 40o প্রিজমের মধ্যে দিয়ে রশ্মির গতিপথ প্রিজমের ভূমির সমান্তরাল হলে, প্রিজমের প্রথম পৃষ্ঠে আপতন কোণ কত হয় নির্ণয় করো। [MP-22]

উঃ- চ্যুতিকোণ (δ) = 40o , ∠A= 60o , এখানে i1 = i2 হবে।

image 3
  আমরা \;জানি, δ = i_1 + i_2 - ∠A \\বা, \;δ=2i_1-∠A\\বা,\;i_1= \frac{δ+∠A}{2}\\বা,\;i_1=\frac{40+60}{2}\\বা,\;i_1=50^o

অতএব, আপতন কোণ হবে 50o

27. একটি উত্তল লেন্সের প্রধাণ অক্ষের সমান্তরাল আপতিত রশ্মিগুচ্ছের জন্য প্রতিসৃত রশ্মির চিত্র আকোঁ। ফোকাস (F) চিহ্নিত করো। [MP-22]

উঃ- সমান্তরাল আলোকরশ্মি গুচ্ছ কোনো উত্তল লেন্সের প্রধাণ অক্ষের সমান্তরালে এসে লেন্সে প্রতিসরণের পরে প্রধাণ অক্ষের উপর যে নির্দিষ্ট বিন্দুতে মিলিত হয়, তাকে ওই লেন্সের দ্বিতীয় মুখ্য ফোকাস বলে।

image 4

28. উত্তল লেন্সের অভিসারী ক্রিয়া ব্যাখ্যা করো। [MP-22]

উঃ- একটি উত্তল লেন্সকে অনেকগুলি মাথা কাটা প্রিজমের সমম্বয় রূপে কল্পনা করা যেতে পারে। উত্তল লেন্সের ক্ষেত্রে প্রিজম গুলির ভূমি লেন্সের প্রধান অক্ষের দিকে থাকে। লেন্সের উপরের অংশের প্রিজমগুলির ভূমি নীচের দিকে থাকে এবং নীচের অংশের প্রিজমগুলির ভূমি উপরের দিকে থাকে। একটি প্রিজমের মধ্য দিiয়ে আলোকরশ্মির প্রতিসরণ হলে রশ্মিটি প্রিজমের ভূমির দিকে বেঁকে যায়। এখন একটি উত্তল লেন্সের প্রধান অক্ষের সমান্তরালে আগত আলোকরশ্মি গুচ্ছ লেন্সে প্রতিসৃত হলে, প্রধান অক্ষের উপরের আলোকরশ্মিগুলি নীচের দিকে এবং প্রধান অক্ষের নীচের দিকের আলোকরশ্মিগুলি উপরের দিকে বেঁকে যায়। এর ফলে প্রতিসৃত রশিগুলি প্রধান অক্ষের কাছে চলে আসে এবং প্রতিসৃত রশ্মি গুলি অভিসারী হয়ে প্রধান অক্ষের উপর একটি বিন্দুতে মিলিত হয়। এই বিন্দুটি হল লেন্সের ফোকাস। আর এই জন্যেই উত্তল লেন্সকে অভিসারী লেন্স বলে।

আরও দেখুনঃ-

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top