জুনিয়ার বিজ্ঞানী কন্যা মেধা বৃত্তি ২০২৪ | Junior Bigyani Kanya Medha Britti 2024

class 11 semester-I routine 2024

একাদশ শ্রেণীর প্রথম সেমিস্টারের রুটিন ২০২৪ | WBCHSE Class 11 Semester-I Routine

class 9 physical science chapter 5

শক্তির ক্রিয়াঃ কার্য, ক্ষমতা ও শক্তি প্রশ্ম-উত্তর | class 9 physical science chapter 5

কার্য, ক্ষমতা ও শক্তি প্রশ্ম-উত্তর |

(class 9 physical science chapter 5 )

⬕ কার্য, ক্ষমতা ও শক্তি প্রশ্ম-উত্তর (MCQ’s class 9 physical science chapter 5)

1.একটি বস্তু F বলের প্রভাবে V বেগে গতিশীল, বস্তুটির ক্ষমতা- FV , F/V , F/V2 , FV2

উঃ- FV

2. এক অশ্ব- ক্ষমতা = কত ওয়াট ? – 740 / 746 / 647 / 764।

উঃ- 746

3. বস্তুর ভর এবং বেগ উভয়েই দ্বিগুণ হলে বস্তুটির গতিশক্তি – দ্বিগুণ হবে/ চারগুন হবে/ সমান হবে / আটগুন হবে।

উঃ- আটগুন হবে।

4. Z= কার্য/ ক্ষমতা হলে, Z কোন রাশি? – গতিশক্তি / স্থিতিশক্তি / সময় / রৈখিক ভরবেগ।

উঃ- সময়।

5. 40 kg ভরের একটি বালক10 টি সিঁড়ি হেঁটে উঠল। প্রতিটি সিঁড়ির উচ্চতা 10 cm হলে, বালক দ্বারা কৃতকার্য – 392 J / 196 J / 1960 J / 98 J

উঃ- 392 J

6.

⬕ কার্য, ক্ষমতা ও শক্তি প্রশ্ম-উত্তর (VSAQ’s class 9 physical science chapter 5)

1. SI তে কার্যের পরম একক কী?

উঃ- জুল।

2. একক সময়ে কৃতকার্যই হল…………..[শুন্যস্থান পূরণ]

উঃ- ক্ষমতা।

3. জুল ও আর্গের মধ্যে সম্পর্ক লেখো।

উঃ- 1 জুল = 107 আর্গ

4. বাঁধের জলে কি শক্তি সঞ্চিত থাকে?

উঃ- স্থিতিশক্তি।

5. 1 কিলোগ্রাম-মিটার = কত আর্গ?

উঃ- 9.8 x 107 আর্গ

6. এফপিএস (FPS) পদ্ধতিতে ক্ষমতার ব্যবহারিক একক কী?

উঃ- এফপিএস (FPS) পদ্ধতিতে ক্ষমতার ব্যবহারিক একক হল অশ্ব-ক্ষমতা বা হর্স-পাওয়ার।

7. অবাধে পতনশীল বস্তুর ……….শক্তি বৃদ্ধি পায়।

উঃ- গতিশক্তি।

8. কার্য ও ক্ষমতার মাত্রা লেখো।

উঃ- কার্যের মাত্রাঃ [ML2T-2] ক্ষমতার মাত্রাঃ [ML2T-3]

9. বল ও সরণের মধ্যস্থ কোণ কত হলে কৃতকার্য শূন্য হবে?

উঃ- 90o

10. প্রযুক্ত বল এবং বস্তুর সরণ পরস্পরের সঙ্গে লম্বভাবে থাকলে কার্যের পরিমান………..।[শুন্যস্থান পূরণ]

উঃ- শূন্য হবে।

কার্য একটি ……..রাশি। [শুন্যস্থান পূরণ]

উঃ- ভেক্টর রাশি।

কার্য, ক্ষমতা ও শক্তি প্রশ্ম-উত্তর (SAQ’s class 9 physical science chapter 5)

1.একজন রোগা লোক এবং একজন মোটা লোক একই সময়ে একই সিঁড়ি বেয়ে একতলা থেকে দোতলায় পৌছোল। কার ক্ষমতা বেশি এবং কেন?

আরও দেখুন:  নবম শ্রেণীর ভূগোল সিলেবাস | Class 9 Geography Syllabus

উঃ- মোটা লোকটির ক্ষমতা বেশি। কারণ লোক দুটি যখন সিঁড়ি দিয়ে একই সময়ে ওপরে উঠছে তখন অভিকর্ষের বিরুদ্ধে ওদের ওজনকে টেনে তুলে ওরা কার্য করছে। সুতরাং যার ওজন বেশি সে একই সময়ে বেশি কার্য করছে। তাই তার ক্ষমতা বেশি।

2. গতিশক্তি কাকে বলে?

উঃ- কোনো গতিশীল বস্তু তার গতির জন্য কার্য করার যে সামর্থ্য লাভ করে, তাকে ওই বস্তুর গতিশক্তি বলে।

3. কার্যের পরিমাপ কীভাবে করা হয়? কোনো বস্তুতে বল প্রয়োগ করলেও কোন কোন ক্ষেত্রে কার্য হয় না?

উঃ- কোনো বস্তুর ওপর প্রযুক্ত বল এবং বস্তুর সরণ এই দুই এর গুনফল দ্বারা কৃতকার্য পরিমাপ করা হয়। কার্য = প্রযুক্ত বল x সরণ

কোনো বস্তুতে বল প্রয়োগ করলেও যে সমস্ত ক্ষেত্রে কার্য হয় না –

১) কোনো বস্তুতে বল প্রয়োগ করেও যদি বস্তুটিকে সরাতে পারা না যায়, তাহলে এক্ষেত্রে কার্য হয় না।

২) বলের প্রয়োগ বিন্দুর সরণ বলের অভিমুখের সঙ্গে লম্বভাবে হলেও কার্য হয় না।

4. অনুভূমিক তলে একটি সুটকেস নিয়ে কোনো ব্যক্তি এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যাচ্ছে। সে কি কোনো কাজ করছে?

উঃ- কোনো ব্যক্তি হাতে সুটকেস নিয়ে অনুভূমিক তলে হাঁটতে থাকলে সুটকেসের সরণের অভিমুখ এবং সুটকেসের ওপর ক্রিয়াশীল অভিকর্ষ বলের অভিমুখ পরস্পর লম্বভাবে থাকে। সুতরাং এক্ষেত্রে অভিকর্ষ বলটি হল কার্যহীন বল। তাই ওই ব্যক্তি অভিকর্ষ বলের বিরুদ্ধে কোনো কার্য করছে না।

5. সময়ভরের দুটি বস্তুর বেগের অনুপাত 1:2 হলে, তাদের গতিশক্তির অনুপাত কত হবে?

উঃ- ধরি বস্তু দুটির ভর = m, প্রথম বস্তুর গতিশক্তি = E1 , বেগ =V1 এবং দ্বিতীয় বস্তুর গতিশক্তি = E2 , বেগ =V2 , V1: V2=1:2

E_1:E_2=\frac{1}{2}mV_1^2:\frac{1}{2}mV_2^2\\\frac{E_1}{E_2}=(\frac{V_1}{V_2})^2\\\frac{E_1}{E_2}=(\frac{1}{2})^2\\\frac{E_1}{E_2}=\frac{1}{4}\\E_1:E_2=1:4

অতএব, বস্তুদুটির গতিশক্তির অনুপাত= 1 : 4

আরও দেখুন:  নবম শ্রেণীর ইতিহাস সিলেবাস | Class 9 History Syllabus

6. স্থিতিশক্তি কাকে বলে? কয় প্রকার ও কী কী?

উঃ- স্থিতিশক্তিঃ কোনো বস্তুর অবস্থান বা আকারের পরিবর্তনের ফলে তার মধ্যে কার্য করার যে সামর্থ্য জন্মায় তাকে ওই বস্তুর স্থিতিশক্তি বলে। স্থিতিশক্তি দুই প্রকারের হয়- ১) অভিকর্ষজ স্থিতিশক্তিঃ কোনো বস্তু পৃথিবীর অভিকর্ষীয় বলক্ষেত্রে তার অবস্থানের পরিবর্তনের জন্যে যে কার্য করার সামর্থ্য লাভ করে তাকে ওই বস্তুটির অভিকর্ষজ স্থিতিশক্তি বলে। যেমন কোনো বস্তুকে উপরে ওঠানোর জন্যে ওর মধ্যে যে শক্তি জমা হয় সেটাই অভিকর্ষজ স্থিতিশক্তি। ২) স্থিতিস্থাপক স্থিতিশক্তিঃ কোনো বস্তু তার আকারের পরিবর্তনের জন্যে কার্য করার যে সামর্থ্য লাভ করে তাকে ওই বস্তুটির স্থিতিস্থাপক স্থিতিশক্তি বলে। যেমন গুলতির রবারটি টেনে লম্বা করলে ওর মধ্যে যে শক্তি জমা হয় তা স্থিতিস্থাপক স্থিতিশক্তি।

7. স্থিতিশক্তিকে ঋণাত্মক কার্য বলা হয় কেন?

উঃ- কোনো বস্তুর উপর প্রযুক্ত বলের প্রয়োগবিন্দুর সরণ বলের বিপরীত দিকে হলে বলা হয় যে প্রযুক্ত বলের বিরুদ্ধে কার্য করা হয়েছে। এক্ষেত্রে কৃতকার্যকে ঋণাত্মক কার্য বলে। স্থিতিশক্তির ক্ষেত্রে কোনো বস্তুকে পৃথিবীর অভিকর্ষীয় বলের বিপরীতে ওঠানো হয়। এক্ষেত্রে প্রযুক্ত বল এবং বলের প্রয়োগবিন্দুর সরণ বলের বিপরীত দিকে হয়। তাই স্থিতিশক্তিকে ঋণাত্মক কার্য বলা হয়।

8. একটি বস্তুর ভর m, গতিশক্তি E। প্রমাণ করো যে, বস্তুটির ভরবেগ P = √2mE

উঃ- একটি বস্তুর ভর = m ; গতিশক্তি = E

\therefore\;E=\frac{1}{2}mv^2\\mv^2=2E\\v=\sqrt{\frac{2E}{m}}\\ভরবেগ(P)\;=mv\\\\=m\times\sqrt{\frac{2E}{m}}\\=\sqrt{2mE}\\অতএব, \;বস্তুর\;ভরবেগ\;=\sqrt{2mE}

9. প্রমান করো, কোনো বস্তুর গতিশক্তির রাশিমালা 1/2.mv2। একটি বস্তু কণার গতিশক্তি ঋণাত্মক হতে পারে কি?

উঃ- ধরি, m ভরের একটি বস্তু v বেগে গতিশীল। বস্তুর গতির বিরুদ্ধে F বল প্রয়োগ করলে বস্তুটি S দূরত্ব অতিক্রম করে থেমে গেল।

কৃতকার্য = F.S, সুতরাং বস্তুটির গতিশক্তি (E)= F.S , বস্তুতে সৃষ্ট মন্দন (a) = F/m

গতীয় সমীকরন থেকে, 0 = v2-2a.s,

অতএব, v2 = 2a.S, v2 = 2(F/m).S

F. S = 1/2 mv2

অতএব, বস্তুটির গতিশক্তি (E)= F.S = 1/2 mv2

আরও দেখুন:  নবম শ্রেণীর ভূগোল সিলেবাস | Class 9 Geography Syllabus

অর্থাৎ, বস্তুটির গতিশক্তি (E)= 1/2 mv2

10. শক্তির নিত্যতা সূত্রটি লেখো। ক্ষমতা কাকে বলে?

উঃ- অবাধে পতনশীল বস্তুর ক্ষেত্রে মোট যান্ত্রিক শক্তি অপরিবর্তিত থাকে।

সময়ের সাপেক্ষে কার্য করার হারকে ক্ষমতা বলে।

11. কার্যহীন বল বলতে কী বোঝায়? উদাহরণ সহ আলোচনা করো।

উঃ- কোনো বস্তুর উপর প্রযুক্ত বলের প্রয়োগবিন্দুর সরণ প্রযুক্ত বলের অভিমুখের লম্ব দিকে হলে ওই বলটি কোনো কার্য করে না এবং ওই বলটিকে কার্যহীন বল বলে। পৃথিবী এবং সূর্যের মধ্যে ক্রিয়াশীল মহাকর্ষ বল গতির লম্বদিকে হওয়ায় মহাকর্ষ বল হল একটি কার্যহীন বল।

12. 150 কেজি ভরের একটি বস্তুকে কত উচ্চতায় তুললে এর স্থিতিশক্তি 7350 জুল হবে।

উঃ- বস্তুটির ভর (150) = কেজি, উচ্চতা =h; স্থিতিশক্তি= 7350 জুল; g= 9.8 m/s2

mgh = 7350\\150\times9.8\times h=7350\\h=\frac{7350}{150\times9.8}\\h=5\;m

অতএব, 150 কেজি ভরের একটি বস্তুকে 5 মিটার উচ্চতায় তুললে এর স্থিতিশক্তি 7350 জুল হবে।

13. একটি ইঞ্জিনের ক্ষমতা 5 HP বলতে কী বোঝায়?

উঃ- একটি ইঞ্জিনের ক্ষমতা 5 HP বলতে বোঝায় ইঞ্জিনটি 550 পাউণ্ড ভরের একটি বস্তুকে এক সেকেণ্ডে এক ফুট উপরে তুলতে পারবে।

14. এক হর্স-পাওয়ার বলতে কি বোঝ?

উঃ- 550 পাউণ্ড ভরের কোনো বস্তুকে 1 সেকেণ্ডে অভিকর্ষের বিরুদ্ধে খাড়াভাবে 1 ফুট উপরে তুলতে প্রয়োজনীয় ক্ষমতাকে এক হর্স-পাওয়ার বলে। 1 কিলোওয়াট (kW) = 1.34 হর্স-পাওয়ার (hp)।

আমাদের পোষ্টের গুরুত্বপূর্ণ আপডেট পেতে আমাদের Facebook Page ফলো করুন এবং Telegram চ্যানেল জয়েন করুন।

WhatsApp Channel Follow
Telegram Channel Join Now
Facebook Page Follow

1 thought on “শক্তির ক্রিয়াঃ কার্য, ক্ষমতা ও শক্তি প্রশ্ম-উত্তর | class 9 physical science chapter 5”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top